>

ঊষসী ভট্টাচার্য

SONGSOPTOK THE WRITERS BLOG | 6/10/2014 |



ঊষসীর কবিতা





শুরুর দৃশ্যে


আদিম রিপুতে একটা বিকেল
ম্যাজিক দেখিয়েছে প্রকাশ্যে-
রবিশঙ্করববডিলান যৌথ সহবাস,
গভীরে ঝাঁপ মেরেছি!
তুমুল আলোড়নে-
আগুন দাউদাউ জ্বলতে থাকে
পারমিতাসম্বোধনে
রক্তে বন্যা বইয়ে দিয়েছ ।
কোন লোভ আমার ছিলনা
লড়াইয়ের সুযোগে
কোন অস্ত্র হাতে তুলে নিই নি,
বুভুক্ষ দরজায় কড়া নেড়ে
ফিরে আসা নিয়তি ছিল-
এ বিস্তার প্রভাব এড়াতে পারেনা কেউ !!
তবু, আমার কোন প্রতিদ্বন্ধি নেই,
প্রেমের কোন প্রতদ্বন্ধি থাকেনা ।



ভ্রষ্ট


কার কাছে দিয়ে যাব তোমাকে?
বুঝতে পারিনা
অঙ্গহানি প্রত্যয়ে মুখ চুবিয়ে চুপ তারপর
সন্ততি বা ভ্রষ্ট বুক
নষ্ট করছে তোমার চশমার কাঁচ
মল্লিকা , মালবিকা , নিরুপমা
হাতাহাতি করছে তোমায় নিয়ে;
করুন ঠোঁটে থুতু গিলে খাচ্ছে নবনীতা।
আলনায় মেলা কালো পাঞ্জাবীর সেন্ট
বুকে সিটিয়ে রাখবে সে!
তুমি বিছানা- বিলাস বিকিয়ে দিয়েছ নাটকের রিহার্সালেই
তোমার আমিটাকে রেখে যাব কোথায়?
সেটাই বুঝতে পারিনা।
যখন পালানো দুপুরে,
নির্জনতার খোঁজে একলা মরা ফড়িং ..
তখন একলা ট্রাম কন্ডাকটার
হেঁটে চলে গেছে একা একা ট্রাম গাড়ি।
আমি সেলফিন পেপারে মুখ ঢেকেছি।
তোমাকে রেখে আসতে পারিনি।
তাই আজো গর্ত খুঁড়ে ,
বীজ বুনছি আগাছার । ।






কবিতা বলা চলেনা ...


পাইপ বেঁয়ে চামচিকে নাচছে ইতস্তত ,
পাশের বাড়ির ছেলেটি
কৃষ্ণগোপাল , নাদুস নুদুস...
বিকেলের রোদ মৌমাছি চুষে খায় ।
প্রলাপ বকছে পাগলী,
বিয়াল্লিশের মন্বন্তর -
লাফিয়ে যাচ্ছে ঢেউ,
পাঁচিলে বসেনা না কাক
আমরা যারা অবাক,হতে হতে
রেললাইন টপকে
চিনের দেয়াল সাজিয়েছি-
তারাও বক বকম বিড়াল।

কাঁধে ঝোলা ব্যাগ
হাতে ডট পেন
খাতায় প্রেমিকা প্রবাহ -
হেঁটে যাচ্ছেন বৃদ্ধ ঈশ্বর ।

পাগলী প্রলাপ গাইছে
'ও বুড়ো ,
রাস্তা কালো
আলো জ্বেলে যা' ... !





Comments
0 Comments

No comments:

Blogger Widgets
Powered by Blogger.