>

জয়া চৌধূরী

SONGSOPTOK THE WRITERS BLOG | 7/15/2015 |



ফেদেরিকো গার্সিয়া লোরকা
নীরবতা
অনুবাদ- জয়া চৌধুরী

শোনো, পুত্র আমার, নীরবতা হল
এক ঢেউ খেলানো শব্দহীনতা
একটি অনুল্লেখ
যেখানে উপত্যকা ও প্রতিধ্বনিরা পিছলে যায় আর
ভাগ্যেরা ঝুঁকে পড়ে
মাটির দিকে।


আহ্
অনুবাদ- জয়া চৌধুরী

ঝড়ের বুকে আর্তনাদটি রেখে যায়
সাইপ্রাস বৃক্ষের একটি ছায়া

(এই প্রান্তরে আমাকে রেখে যাও তোমরা,
ক্রন্দনরত।)

পৃথিবী জুড়ে সব কিছু চুরমার।
নিস্তব্ধতা ব্যতিরেকে কিছু নেই আর।

(এই প্রান্তরে আমাকে রেখে যাও তোমরা,
ক্রন্দনরত।)

দিগন্ত আলোহীন
বহ্নুতসবে সব হয়ে গেছে খাক।
(তোমাদের তো বলেইছি
আমাকে রেখে যাও তোমরা,
ক্রন্দনরত।)


সুগন্ধটা কেউ বোঝে নি
অনুবাদ- জয়া চৌধুরী

তোমার অন্ধকার ম্যাগনোলিয়া ফুলের মত গর্ভের সুগন্ধ
কেউ বুঝতে পারবে না।
ভালোবাসার এক হামিং পাখিকে দাঁতের পেষণে অসহ্য যন্ত্রণা দাও তুমি
সেকথা কেউ জানতে পারবে না।

আমার পারসী অশ্বের দল তোমার কপালের
চাঁদটা সঙ্গে করে ঘুমোত আর ততক্ষণে আমি
তোমার কোমরের সাথে বেঁধে ফেলতাম কন্যা,
চারটি রাত, আর তুষারের শত্রুকে।

পলেস্তারা আর জুঁই ফুলের মধ্যখানে তোমার পলক
ওটা বীজের ফ্যাশন তোড়া ছিল,
তোমাকে দেব বলে, আমি খুঁজেছিলাম, আমার বুক দিয়ে
গজদাঁতের অক্ষরেরা বরাবর যা বলে চলে,

বরাবর, বরাবরঃ আমার অসহনীয় যন্ত্রণার বাগান,
চিরকালের মত অপস্রিয়মাণ তোমার শরীর।
আমার মুখের ভেতরে তোমার শিরার রক্ত,
আমার মৃত্যু পর্যন্ত এখনো আলোহীন তোমার মুখ।


কবি পরিচিতি
ফেদেরিকো গার্সিয়া লোরকাঃ
(৫ই জুন ১৮৯৮-১৯ আগস্ট, ১৯৩৬) স্পেনের গ্রানাদায় লোরকার জন্ম। তিনি স্পেনীয় সাহিত্যের প্রজন্ম ২৭-এর সদস্য হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেন। কিশোর বয়সেই নাট্যাভিনয়ে হাতেখাড়ি, পিয়ানো ও গিটারে অসামান্য দক্ষতা অর্জন, কবিতায় প্রতিভার স্ফূরণ ঘটে। তাঁর প্রথম কবিতার বই ১৯২১ সালে প্রকাশিত হয়। ১৯২৪ সালে রাফায়েল আলবার্তির সংগে মাদ্রিদে দুজনের সাক্ষাত হয়। লোরকার Romance Sonambulo-তে সৃষ্টি হয়েছিল নাটকীয়তা যার মধ্যে ছিলো লুকোনো শিহরন ও রহস্যময় রক্তধারা। জগদবিখ্যাত চিত্রশিল্পী সালভাদোর দালির সঙ্গে তাঁর প্রগাঢ় বন্ধুত্ব ছিল । কালক্রমে চলচ্চিতকার লুই বুনুয়েল এই জুড়ির সঙ্গে সম্পর্ক যুক্ত হন। তার ফলশ্রুতি তে নাট্যকার লোরকাকেও পাই আমরা। বোদাস দে সাংগরেবা রক্তের বিয়ে তাঁর বিশ্ববিখ্যাত নাটক। ১৯৩৬ সালে তাঁকে হত্যা করে স্পেনের ফ্যাসিবাদী ফ্রাঙ্কো র বাহিনী।



Comments
0 Comments

No comments:

Blogger Widgets
Powered by Blogger.