>

মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান।

SONGSOPTOK THE WRITERS BLOG | 8/10/2014 |

   নক্ষত্রের কালজয়ী হাত


নক্ষত্রের কালজয়ী হাত

নক্ষত্রের সে বির্যবান কালজয়ী হাতের
শারীরিক পচন ধরালি ঘাতক
যে হাতের অঙ্গুলি হেলনে
গর্জে উঠে মাটি ও মানুষ
লতা-পাতা পাহাড় নদী
সব হয়ে যায় এক দেহ এক আত্মা।
নক্ষত্রের সে উত্থিত হাতের অঙ্গুলি নির্দেশে
লিপিবদ্ধ হয় সাত কোটি কবির অক্ষয় কাব্য,
ঠিকানা লিপিবদ্ধ হয়
সীমানা নির্ধারিত হয়
পতাকার বর্ণিল নকশা অঙ্কিত হয়
আমার মৌলিক অধিকার সব নিশ্চিত হয়
আমার সোনালি ভবিষ্যত নিশ্চিত হয়।
আমার বুকের হৃদপিন্ডে যার অস্তিত্ব
নির্মাণ করে রেখেছি
অবিনশ্বর এ ছবি মুছবি কি দিয়ে
রে পামর !



 সোনালি স্বপ্ন

সোনার যৈবন আমি তোমাকে দিলাম
সোনালি স্বপ্ন আমায় দেখাবে বলে
হৃদয়ের মণিকোঠায় জমানো সব
থোকা থোকা ভালোবাসা আর
শ্রমের লোনা ঘামও তোমাকে দিলাম
নির্জন ঊদাস দুপুরের ঘনিষ্ঠতা
পাতা ঝরা বসন্তের বৈকালিক ছায়া
সোনালি গোধুলির সীমাহীন মায়া
এবং পদ্ম-পুকুরের অপার নিরবতা
তোমার হাতে তুলে দিলাম প্রিয় বান্ধব আমার,
তবু তোমার মনের কিনারা মিলে না
তবু তোমার রাঙ্গা ঠোঁটে ঊষার হাসি ফুটে না
গোলাপের সুঘ্রাণ ছড়ায় না
তোমার রক্তচক্ষু কিছুতেই নীল হয় না;
এবার তুমি আমার আত্মাকে বন্দি করবে বলে
তোমার শাণিত খড়গ-হস্ত প্রসারিত করেছো
দুঃসাহসী চণ্ডাল ভঙ্গিমায়
আর তোমার সাথে ঘর করা যায় না কিছুতেই
এবার সত্যি সত্যি তোমার আমার বিচ্ছেদ রচিত হলো
অনিচ্ছাসত্বেও !
আমায় ক্ষমা করে দিয়ো প্রিয় বান্ধব আমার !



পিতৃ হন্তারকের ফাঁসি চাই

পিতৃ-হত্যার জিঘাংসায় জ্বলে
বুকের পূর্ণদাহ্যমান চিতা
কি শীতল বর্ষণে এ দহন নিভাবো বলো
আমার এ ক্ষুদ্র হৃদয়ের সাহস কি ?
আমার ক্ষুদ্র দু'বাহুর ক্ষমতা কি ?
এসো ষোল কোটি আত্মা এক করি,
এসো বত্রিশ কোটি হাত এক করি।
বজ্রকণ্ঠে ঘোষণা করি-
পিতৃ হন্তারকের ফাঁসি চাই
ইনডেমনিটি বিল প্রণেতা খুনিদের
মরণোত্তর ফাঁসি চাই
ইনডেমনিটি অর্ডিন্যান্স জারিকারী
খুনি মোশতাকের মরণোত্তর ফাঁসি চাই
মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে মিথ্যার কালিমা
লেপনকারিদের ফাঁসি চাই
গণতন্ত্র নস্যাতকারি ষড়যন্ত্রকারিদের ফাঁসি চাই
বাংলার সম্পদ লুটেরার ফাঁসি চাই
যুদ্ধাপরাধি লালনকারিদের ফাঁসি চাই,
জনতার মঞ্চে এ আমার হিমালয় দাবি !


মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান








Comments
0 Comments

No comments:

Blogger Widgets
Powered by Blogger.